জেনে নেই রােযার ফরয হওয়ার বর্ণনা অর্থাৎ রােযা কখন কাদের ওপর ফরয হয় এবং তা পালন করলে কি ফযিলত হয় এ সমপর্কে মাসআলা।

Share:

আসসলামুয়ালাইম

পরম করুনাময়,অসীম দয়ালু মহান আল্লাহ পাকের নামে শুরু করছি।

কেমন আছেন সবাই?আশা করি আল্লাহর রহমতে সবাই ভালো আছেন। আমিও আপনাদের দোয়ায় ভালো আছি।আজ আমি আপনাদের জন্য নিয়ে হাজির হয়েছি…রােযার ফরয হওয়ার বর্ণনা অর্থাৎ রােযা কখন কাদের ওপর ফরয হয় এবং তা পালন করলে কি ফযিলত হয় এ সমপর্কে মাসআলা নিয়ে,,,।

রােযার ফরয হওয়ার বর্ণনা

ইসলামের রােকন সমুহের মধ্যে একটি রােকন হলাে পবিত্র রমজান মাসের রােজা, যা প্রত্যেক মুকাল্লাফ (যাদের উপর শরীয়তের হুকুম প্রযােজ্য) মুসলমানের উপর অবশ্য পালনীয় ফরয। তার অস্বীকারকারী কাফের এবং বিনা ওজরে পরিত্যাগকারী ফাসেক। সহীহ বুখারী ও মুসলিম শরীফে বর্ণিত আছে, হযরত আবু বকর (রাযি) নবী
করীম সাল্লাল্লাহু আলায়হি ওয়াসাল্লাম থেকে বর্ণনা করেন যে, বনী আদযের প্রতিটি আমলের ছওয়াব আল্লাহ তায়ালা সাত থেকে একশত গুণ পর্যন্ত বৃদ্ধি করেন। কিন্তু রােযা সম্পর্কে আল্লাহ তায়ালা বলেন, নিশ্চয়ই রােযা আমার জন্যে এবং আমি নিজেই রােযার প্রতিদান দিব।


রােযা আদায় করার বর্ণনা।


মাসআলা :

রােযা আদায় হওয়ার জন্যে নিয়ত এবং হায়েয ও নিফাস থেকে পবিত্র হওয়া শর্ত।


মাসআলা :

রােযা ছ প্রকার – (১) রমজান মাসের রােযা, (২) কাজা রােযা, (৩) নির্দিষ্ট মান্নতের রােযা, (৪) অনির্দিষ্ট মান্নতের রােযা, (৫) কাফফারার রােযা, (৬) নফল রােযা। ইমাম আযম (রাহি) এর মতে সাধারণ নিয়ত, ফরযে ওয়াক্তের নিয়ত এবং নফল নিয়তের দ্বারা রমাজান মাসের রোযা আদায় হয়ে যায়। রমজান মাসে কেউ যদি কাযা অথবা কাফফারার রােযার নিয়ত করে। আর ঐ ব্যক্তি যদি সুস্থ ও মুকীম হয় তবে ঐ সময়ের ফরয অর্থাৎ রমজান
মাসের রােযাই আদায় হবে অন্য রােযা আদায় হবে না। আর যদি সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি রােগী অথবা মুসাফির হয় তাহলে সে কাযা অথবা
কাফ্ফারা যে ধরনের রােযার নিয়ত করবে সেটিই আদায় হবে। তবে সাহেবাইন (রহ) এর মতে এমতাবস্থায়ও ফরযে ওয়াক্তের তথা রমাজানের রােযাই আদায় হবে। আর ইমাম মালেক, ইমাম শাফেয়ী ও ইমাম আহমদ (রহ) এর মতে রমজানের রােযার জন্যেও ফরয ওয়াক্তের নিয়ত নির্দিষ্ট করে করা জরুরী। ইমাম আযম (রহ) এর মতে নির্দিষ্ট মান্নতের রােযা যেরূপ (শুধু) মান্নতের নিয়ত করলে আদায় হয়ে যায় তেমনি রমজানের রােযাও সাধারণ নিয়ত ও নফল নিয়ত করলে আদায় হয়ে যায়। তেমনি রমজানের রােযাও সাধারণ ক্ষেত্রে যদি
অন্য কোন ওয়াজিব রােযার নিয়ত দ্বারা আদায় হয় তেমনি সাধারণ নিয়তের দ্বারাও সর্ব সম্মতিক্রমে আদায় হয়ে যায়। তবে অনির্দিষ্ট মান্নতের রােযা কাযা ও কাফফারার ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট ভাবে নিয়ত করা শর্ত। এ ব্যাপারে সকলেই একমত।


মাসআলা :

রােযার নিয়েতের সময় হলাে, সূর্যাস্তের পর থেকে সুবহে সাদেকের পূর্বক্ষণ পর্যন্ত। সুবহে সাদেক উদিত হওয়ার পর নিয়ত করা জায়েজ নয়। তবে ইমাম শাফেয়ী ও ইমাম আহমাদ (রহ) এম মতে নফল রােযার বেলায় দ্বি-
প্রহরের পূর্ব পর্যন্ত নিয়ত করা জায়েয আছে। আর ইমাম মালেক (রহ.) এর মতে সুবাহে সাদেক হওয়ার পর নফল রােযার নিয়ত করাও জায়েয নেই। ইমাম আবু হানিফা (রহ) এর মতে রমজানের রােযা, নির্দিষ্ট
মান্নতের রােযা এবং নফল রােযার নিয়ত দ্বি-প্রহরের পূর্ব পর্যন্ত করা জায়েজ আছে। আর কাফফারা এবং অনির্দিষ্ট মান্নতের রােযার নিয়ত সুবহে সাদেক উদিত হওয়ার পর জায়েয নেই। এ ব্যাপারে সমস্ত ইমাম একমত। তিন ইমাম (তথা ইমাম আবু হানিফা, ইমাম শাফেয়ী ও ইমাম আহমদ রহ.) এর মতে রমজান শরীফের ক্রিশ দিনের রােযার জন্যে প্রতি রাত্রেই পৃথক পূথক নিয়ত করা শর্ত। আর ইমাম মালেক (রহ) এর মতে সমস্ত রমজানের রােযার জন্যে রমযানের প্রথম রাত্রের নিয়তেই যথেষ্ট।
কোন ব্যক্তি যদি রমযান মাসের প্রথম রাত্রেই ক্রিশ রাত্রের নিয়ত করে নেয় এবং রমজানের মাঝামাঝি সময়ে লােকটি পাগল হয়ে যায় এবং কয়েকদিন এ অবস্থায় অতিবাহিত করে এবং উক্ত দিন গুলােতে তাঁর মধ্যে রােযা ভঙ্গকারী কোন কারণ সংঘটিত না হয়; তাহলে। ইমাম মালেক (রহ) এর মতে তাঁর রোেযা আদায় হয়ে
যাবে। তবে তিন ইমামের মতে পাগল থাকা কালীন দিনগুলাের রোযা কাযা করতে হবে। কেননা, (উন্মাদনার কারণে) তার নিয়ত বাতিল হয়ে গেছে। আর যদি সমস্ত রমজান ব্যাপী সে উন্মাদ থাকে, তবে তাঁর উপর থেকে রােযা মাফ হয়ে যাবে। কাযা ওয়াজিব হবে না। তবে রমজান মাসের কোন এক মুহূর্তের জন্যেও যদি তাঁর স্বাভাবিক জ্ঞান ফিরে আসে তাহলে পিছনের দিন গুলাের রােযা কাযা করতে হবে। চাই সে বালেগ হওয়ার সময় পাগল হােক বা বালেগ হওয়ার পর হােক।

আল্লাহ্ তালা আমাদের কে এর উপর আমল করার তৌফীক দান করুন,,,আমিন,, সবাই সুস্তো থাকেন ভালো থাকেন আবর পরে দেখা হবে নতুন কোন বিষয় আল্লাহ্ হাফেয,,,,।

The post জেনে নেই রােযার ফরয হওয়ার বর্ণনা অর্থাৎ রােযা কখন কাদের ওপর ফরয হয় এবং তা পালন করলে কি ফযিলত হয় এ সমপর্কে মাসআলা। appeared first on Tipsjano24.com.



News alo

No comments